‘খাটো মানুষ’ যে কারণে বেশি রাগি হন!

‘খাটো বা বেঁটে’ মানুষরা নাকি বেশি রাগি হন। এমনকি লম্বাদের তুলনায় অনেকটাই বেশি। আমেরিকার সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল ইন আটলান্টার গবেষকরা এক সমীক্ষায় এ কথা বলেছেন।১৮ তেকে ৫০ বছর বয়সী ৬০০ মানুষের ওপর সমীক্ষা চালিয়ে তারা দেখেছেন, ‘উচ্চতায় খাটো’ মানুষরা সামান্য কথায়ই রেগে যান। তাদের সামনে কোনো লম্বা মানুষ দাঁড়িয়ে থাকলে এমনিতেই ‘খাটোরা’ ঈর্ষান্বিত হন। তাই লম্বা মানুষরা কোনো কথা বললে সহ্য করতে পারেন না ‘খাটোরা’।যদিও সবক্ষেত্রে এই নিয়ম খাটে না। ব্যতিক্রমও আছে। তবে ‘খাটো’ মানুষরা যে বদমেজাজি হন তার অন্যতম প্রমাণ নেপোলিয়ান ও হিটলার।
সম্প্রতি অক্সফোর্টের একদল গবেষক এই ব্যাপারে বলেছিলেন, এটা ‘শর্টম্যান সিনড্রোম’। যা থেকে উচ্চ রক্তচাপ জনিত সমস্যা দেখা দেয়। ফলে হার্ট অ্যাটাকের মতো আচমকা মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়তে পারেন।এমনিতেই রাগের মাত্রা অতিরিক্ত হলে হিতাহিত জ্ঞানশূন্য হয়ে মানুষ অনেক বড় দুর্ঘটনা ঘটিয়ে ফেলতে পারে।

‘খাটো বা বেঁটে’ মানুষরা নাকি বেশি রাগি হন। এমনকি লম্বাদের তুলনায় অনেকটাই বেশি। আমেরিকার সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল ইন আটলান্টার গবেষকরা এক সমীক্ষায় এ কথা বলেছেন।১৮ তেকে ৫০ বছর বয়সী ৬০০ মানুষের ওপর সমীক্ষা চালিয়ে তারা দেখেছেন, ‘উচ্চতায় খাটো’ মানুষরা সামান্য কথায়ই রেগে যান। তাদের সামনে কোনো লম্বা মানুষ দাঁড়িয়ে থাকলে এমনিতেই ‘খাটোরা’ ঈর্ষান্বিত হন। তাই লম্বা মানুষরা কোনো কথা বললে সহ্য করতে পারেন না ‘খাটোরা’।যদিও সবক্ষেত্রে এই নিয়ম খাটে না। ব্যতিক্রমও আছে। তবে ‘খাটো’ মানুষরা যে বদমেজাজি হন তার অন্যতম প্রমাণ নেপোলিয়ান ও হিটলার।
সম্প্রতি অক্সফোর্টের একদল গবেষক এই ব্যাপারে বলেছিলেন, এটা ‘শর্টম্যান সিনড্রোম’। যা থেকে উচ্চ রক্তচাপ জনিত সমস্যা দেখা দেয়। ফলে হার্ট অ্যাটাকের মতো আচমকা মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়তে পারেন।এমনিতেই রাগের মাত্রা অতিরিক্ত হলে হিতাহিত জ্ঞানশূন্য হয়ে মানুষ অনেক বড় দুর্ঘটনা ঘটিয়ে ফেলতে পারে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *