গাধার দুধের দাম ১০ হাজার টাকা!

ভারতের তেলঙ্গনায় গাধার দুধ প্রতি লিটার বিক্রি হচ্ছে সাত হাজার রূপিতে ( বাংলাদেশি মুদ্রায় ১০ হাজার টাকা)। গবেষণায় জানা গেছে গাধার দুধে আছে কম ফ্যাট। এছাড়া রয়েছে ভিটামিন ও খনিজ পদার্থ। আরো আছে ভিটামিন এ, বি-১, বি-২, বি-৬, ডি, সি, ই। ওমেগা-৬। ক্যালশিয়াম, ফসফরাস, ম্যাগনেশিয়াম, সোডিয়াম, আয়রন, জিঙ্ক।

খবরে বলা হয়, এজন্য ওষুধ ও প্রসাধনী তৈরির কাঁচামাল হিসেবে গাধার দুধের চাহিদা তৈরি হয়েছে। আর এ কারণে আমেরিকা, ইউরোপ, মধ্য ও পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতেও এই দুধের চাহিদা বেড়েছে অনেক। সম্প্রতি তেলঙ্গনার প্রত্যন্ত গ্রামগুলোতে বেআইনিভাবে চড়া দামে গাধার দুধ বিক্রি হচ্ছে।তাদের দাবি, চিকিত্‍সকরাই বলেছেন, গাধার মিষ্টি দুধ নিয়মিত খেলে খুব দ্রুত ব্যথা, যন্ত্রণার উপশম হয়। রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে এবং যৌবন দীর্ঘায়িত হয়।

দক্ষিণ ভারতে ওষুধ হিসেবে গাধার দুধের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। সেখানে ১ চামচ দুধ বিক্রি হয় ৫০ থেকে ১৫০ রূপিতে। তবে গাধার দুধের চাহিদা ও দাম ভালো পাওয়ায় ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে এর খামারও বৃদ্ধি পাচ্ছে।প্রথমেই গাধার দুধ থেকে তৈরি ক্রিম ও শ্যাম্পু তৈরি বাজারজাত শুরু করেন। আর্থারাইটিসের ক্রিমের দাম ৪ হাজার ৮৪০ রূপী, এগজিমার ক্রিম ৬ হাজার ১৩৬ । ২০০ মিলিলিটারের মেডিকেটেড শ্যাম্পুও ২ হাজার ৪০০ রূপী।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *