ছেলেকে রেখে কুকুরের নামে সম্পত্তি লিখে দিলেন বাবা!

বাবা-মায়ের সম্পত্তির উত্তরাধিকার সাধারণত সন্তানরাই হন। যদিও বিশেষ ক্ষেত্রে কিছু ব্যতিক্রম হয়। সন্তান না থাকলে ভাই-ভাতিজা কিংবা নিকটাত্মীয়রাই সম্পত্তির ওয়ারিশ হন। কিন্তু তাই বলে কুকুরকে সম্পত্তির ওয়ারিশ করা হবে! শুনতে অবাক লাগলেও ঘটনা এমনটিই হয়েছে।ভারতের মধ্যপ্রদেশে বাড়িওয়ারা গ্রামের বাসিন্দা নারায়ণ ভার্মা তার সম্পত্তির অর্ধেক কুকুরকে দিয়ে দিয়েছেন। আর বাকি অর্ধেক দিয়েছেন স্ত্রী চম্পা বাঈকে।

ছেলেকে বঞ্চিত করে কেন তিনি এমনটি করলেন, সেটিও জানা গেছে। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর খবরে জানানো হয়েছে, ছেলের ওপর প্রচণ্ড বিরক্ত ছিলেন নারায়ণ ভার্মা। মাঝেমধ্যেই বাপ-বেটার বাকবিতণ্ডা হতো। এরইমধ্যে তিনি এতটাই ক্ষেপে গেলেন যে, নিজের পালিত কুকুর জ্যাকির নামে অর্ধেক সম্পত্তি লিখে দিলেন।এ নিয়ে করা উইলে সম্পত্তি দানের বিষয়টি উল্লেখ করে নারায়ণ ভার্মা জানিয়েছেন, একমাত্র স্ত্রী চম্পা বাঈ ও কুকুর জ্যাকি ছাড়া আর কেউ তার দেখাশোনা করে না। তাই তিনি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তার মৃত্যুর পর যে ব্যক্তি জ্যাকির দেখভাল করবেন সম্পত্তির সেই অংশ সেই ব্যক্তিই ভোগ করবেন বলেও উইলে উল্লেখ করেছেন নারায়ণ ভার্মা।ব্যক্তিগত জীবনে দুটি বিয়ে করেছেন নারায়ণ ভার্মা। প্রথম সংসারে তিন মেয়ে ও এক ছেলে এবং দ্বিতীয় সংসারে এক ছেলে রয়েছে তার।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *