জাপান সরকার বিয়ে করলেই ৬ হাজার ডলার দিচ্ছে।

জাপানে কর্মজীবী মানুষদের দেরিতে বিয়ে করা কিংবা একেবারেই বিয়ে না করার প্রবণতার কারণে জন্মহার অত্যন্ত কম। এজন্য নববিবাহিত দম্পতিরা বাসাভাড়া ও অন্যান্য সাংসারিক ব্যয় মেটাতে ৬ লাখ ইয়েন বা ৫ হাজার ৭০০ ডলার পাবে সরকারের পক্ষ থেকে।মূলত কর্মজীবী তরুণ-তরুণীদের বিয়েতে উৎসাহিত করতে নববিবাহিত দম্পতিদের এই বিশেষ সহযোগিতা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। দেশটির যেকোনো শহরে বসবাসকারী নারী ও পুরুষ যদি আগামী এপ্রিল থেকে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন, তাহলে এ সুযোগের জন্য বিবেচিত হবেন।ভবিষ্যতে আরো অধিক দম্পতিকে এ সুযোগের আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছে কেবিনেট অফিসের কয়েকটি সূত্র। অবশ্য সরকারি এ সহযোগিতার জন্য বিবেচিত হতে হলে স্বামী ও স্ত্রী উভয়কেই বিয়ের সময় ৪০ বছরের নিচে থাকতে হবে।এছাড়া ৩৫ বছরোর্ধ্ব দম্পতিদের সম্মিলিত আয় ৫৪ লাখ ইয়েনের নিচে থাকতে হবে। এর চেয়ে কম বয়সীদের সম্মিলিত বার্ষিক আয় ৪৮ লাখ ইয়েনের কম হলে এ সুযোগ গ্রহণ করতে পারবেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, গত জুলাই নাগাদ ২৮১টি পৌরসভা বা জাপানের মাত্র ১৫ শতাংশ মহানগরী, শহর ও গ্রাম এ কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। ২০২১ অর্থবছরে দুই-তৃতীয়াংশের ব্যয়ভার বহন করবে কেন্দ্র সরকার। সরকারি সূত্রের বরাতে এ তথ্য নিশ্চিত হয়েছে জাপানি সংবাদমাধ্যম কিয়োদো।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *