জয় কি হিন্দু না মুসলিম, সাফ জবাব অপু বিশ্বাসের

ঢাকাই ছবির অন্যতম জনপ্রিয় ও ব্যবসা সফল জুটি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস ভালোবেসে বাস্তবেও ঘর বেঁধেছিলেন। গোপনে অনেকগুলো বছর সংসারও করেছেন। হয়েছেন বাবা-মা। কিন্তু সেই খবর কেউ জানতো না। একটা সময় অপু বিশ্বাস সন্তান কোলে নিয়ে সেই কথা সবাইকে জানাতে নিজেই সামনে এলেন। শাকিবও অপুকে নিজের বিয়ে করা স্ত্রী হিসেবে স্বীকার করলেন। তাতে অবশ্য ঘোলা জল শান্ত হলো না। তাদের বিচ্ছেদ হয়ে গেল। তবে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের সম্পর্কের ফসল তাদের একমাত্র সন্তান আব্রাম খান জয়। শাকিবের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যাওয়ার পর থেকে অপুর ঘরে বেড়ে উঠছে ছোট্ট জয়।

 

স্বামীর সঙ্গে ডিভোর্স হলেও ধর্ম ত্যাগ করেননি অপু বিশ্বাস। আছেন হিন্দু ধর্মেই। এমনকি দ্বিতীয় কারও সঙ্গেও সংসার শুরু করেননি। বাবা মুসলমান, মা হিন্দু। এমতাবস্থায় শাকিব-অপুর সন্তান আব্রামের ধর্ম কী? অতীতে বহুবারই এমন প্রশ্ন অপুর সামনে এসেছে। তিনিও জবাব দিতে অস্পষ্টতা রাখেননি কখনো।অপু বিশ্বাসের কথায়, ‘আমি জন্মগতভাবে হিন্দু। আমি মারা গেলে আমাকে দাফন নয়, দাহ করা হবে। আমার পাসপোর্ট, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সবখানেই আমার ধর্ম হিন্দু উল্লেখ রয়েছে। আমার একটা বাড়ি রয়েছে একটা গাড়ি রয়েছে- সবগুলোর কাগজেই একই নাম রয়েছে। আমি যখন ভিসা নিতে যাই আমার রিলিজিয়ন জিজ্ঞেস করে, আমি বলি হিন্দু।’

 

ঢাকাই ছবির এ নায়িকা বলেন, ‘আমার সাথে একজন মুসলিমের বিয়ে হয়েছে। তার আচার রীতি আমি মেনে নিয়েছি। শাকিব আমাকে ধর্মের কথা কাউকে না বলতে নিষেধ করেছে। আমি যখন ওই বাসায় ছিলাম তখন আমার রুমের যে ফ্রিজ ছিল সেখানেও গরুর মাংস ঢোকানো নিষেধ ছিল। শাকিব এসব জানতো। ওর মা বাবা সবাই জানতো আমি সবসময় পূজা করতাম।’ছেলে আব্রাম খান জয়ের ধর্ম প্রসঙ্গে বলেন, ‘জয়ের ধর্ম নিয়ে আমি এই মুহূর্তে কিছু বলবো না। সময়ই সেটা বলে দেবে। যেসব গণমাধ্যম জয়ের ধর্ম নিয়ে সংবাদ করেছে সেসব বিভ্রান্তিকর ও বানোয়াট। জয়ের ধর্ম নিয়ে আমি কিছু বলিনি। আর এ মুহূর্তে কিছু বলতেও চাই না।’

 

‘আমার ছেলে যেহেতু আমার সঙ্গে আছে, সে আমার মতো করেই বড় হচ্ছে। সে তার বাবার সঙ্গে কখনও ঈদ করেনি। ভবিষ্যতের কথা তো বলতে পারবো না’- বলেন অপু বিশ্বাস।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *