দাদার স্বপ্ন পূরণে ‘ঋণের’ টাকায় হেলিকপ্টারে বিয়ে!

কথায় বলে ধ্বংস হতে চাইলে ঋণ করে বড় মাছের মাথা খান। সেই কথাই আবার প্রমাণ করলেন এক পোশাক শ্রমিক। মৃত দাদার ইচ্ছা পূরণ করতে হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করতে যান ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার ফারুক হোসেন।জানা গেছে, উপজেলার মানিকপুর ইউনিয়নের বাহেরচর গ্রামের আকতার হোসেনের ছেলে ফারুক মিয়া চাকরি করেন গার্মেন্টসে। আর্থিক অভাব অনটন থাকলেও প্রয়াত দাদা মুরহুম মুনতাজ মিয়ার স্বপ্ন পূরণ করতেই হেলিকপ্টারে চড়ে বিয়ে করেছেন। দাদার ইচ্ছা পূরণ করতে ধার করে ১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা হেলিকপ্টার ভাড়া দিয়েছেন।

শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) ফারুক তার তিন বোন ও ভাগ্নিকে হেলিকপ্টারে নিয়ে বিয়ে করতে যান।স্থানীয়রা জানান, ফারুক হেলিকপ্টারে বিয়ে করতে যাবে বলে এলাকার উৎসুক নারী পুরুষ ভিড় করেন। কুমিল্লার হোমনা উপজেলার নালাদক্ষিণ গ্রামের কামরুল হোসেনের মেয়ে শাহনাজের সঙ্গে বিয়ে হয় ফারুকের। বরযাত্রী ২০০ জন গেছেন ট্রলারে করে। তার মরহুম দাদার ইচ্ছা পূরণ করতে ফারুকের পরিবার ধার দেনা করে হেলিকপ্টার ভাড়া করেছেন।

ফারুকের বাবা আকতার হোসেন জানান, ফারুকের দাদার শখ ছিল নাতিকে হেলিকপ্টারে করে বিয়ে করানো। বাবার ইচ্ছা পূরণ করতে এই সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে।এ বিষয়ে বর ফারুক মিয়া বলেন, ‘ আমার দাদার স্বপ্ন পূরণ করতেই ১ লাখ ৪৫ হাজার টাকা দিয়ে হেলিকপ্টার ভাড়া করে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *