‘নায়করাজ’ রাজ্জাকের জন্মদিন আজ

চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক রাজ্জাকের জন্মদিন আজ শনিবার (২৩ জানুয়ারি)। ১৯৪২ সালের আজকের দিনে দেশের চলচ্চিত্র জগতের এই কিংবদন্তি কলকতার টালিগঞ্জে জন্মগ্রহন করেন। তার প্রকৃত নাম আব্দুর রাজ্জাক। টালিগঞ্জের মোল্লা বাড়ির আকবর হোসেন ও মা মিনারুন্নেসার ছোট সন্তান রাজ্জাক। জন্মের পর কলকাতায় বেড়ে ওঠা তার। অভিনয়ের প্রতি নয় আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু ছিরো একজন খেলোয়াড় হওয়ার। তবে কলকাতার থিয়েটারে অভিনয় করার মাধ্যমে রাজ্জাক তার অভিনয় জীবনের শুরু করেন।

এরপরে সিনেমার নায়ক হওয়ার অদম্য স্বপ্ন ও ইচ্ছা নিয়ে রাজ্জাক ১৯৫৯ সালে ভারতের মুম্বাইয়ের ফিল্মালয়তে সিনেমার ওপর পড়াশুনা ও ডিপ্লোমা গ্রহণ করেন। এরপর কলকাতায় ফিরে এসে শিলালিপি ও আরও একটি সিনেমায় অভিনয় করেন। তবে ১৯৬৪ সালে কলকাতায় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার কবলে পড়ে রাজ্জাক তার পরিবার পরিজন নিয়ে ঢাকায় চলে আসেন।

‘৬০-এর দশকে সালাউদ্দিন পরিচালিত হাসির ছবি ‘তেরো নম্বর ফেকু ওস্তাগার লেন’-এ একটি পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে রাজ্জাক ঢাকায় তার অভিনয় জীবনের সূচনা করেন। এরপর প্রতিভাবন পরিচালক জহির রায়হান তার লোক ছবি ‘বেহুলা’তে রাজ্জাককে লখিন্দরের ভূমিকায় অভিনয় করার সুযোগ পান। ‘বেহুলা’ ছবিতে সুচন্দার বিপরীতে নায়ক হিসেবে অভিনয় করে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেন তিনি-এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি রাজ্জাককে।

পরে সেই রাজ্জাক নায়কের ভূমিকায়-অভিনয় করেন ৩ শ’-এরও বেশি চলচ্চিত্রের।  তার অভিনিত জননন্দিত ছবিগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘নীল আকাশের নীচে, ময়নামতি, মধু মিলন, পীচ ঢালা পথ,  যে আগুনে পুড়ি,  জীবন থেকে নেয়া, কী যে করি, অবুঝ মন,  রংবাজ, বেঈমান, আলোর মিছিল, অশিক্ষিত, অনন্ত প্রেম, বাদী থেকে বেগম ইত্যাদি।

দীর্ঘ ও বর্ণাঢ্য অভিনয় জীবনে রাজ্জাক-সুচন্দা, রাজ্জাক-কবরী ও রাজ্জাক-শাবানা ও রাজ্জাক-ববিতার অনেক সিনেমা দর্শক হৃদয়ে আলোড়ন সৃষ্টি করে এবং যা রাজ্জাককে ঢালিউডের নায়ক রাজ উপাধিতে ভূষিত করেছে। কাজের স্বকৃতি স্বরূপ তিনি পেয়েছেন একাধিক জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কার।

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে নায়করাজ রাজ্জাক একটি অতি উজ্জ্বল নক্ষত্রের নাম। তাঁকে বাদ দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রের ইতিহাস কল্পনা করাও সম্ভব নয়। দেশের চলচ্চিত্রের গভীর থেকে গভীরে তাঁর বিস্তার। এ পর্যন্ত তিনি মোট সাতবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন, মেরিল-প্রথম আলো আজীবন সম্মাননা (২০১৪) , এছাড়াও বাচাসাস সহ বহু সংগঠনের অসংখ্য পদক জয় করেছেন নায়ক রাজ রাজ্জাক।২০১৭ সালের ২১ আগস্ট রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতাল লিমিটেডে এই বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে এই অতি উজ্জ্বল নক্ষত্রের প্রয়াণ ঘটে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *