নিজেকেই বিয়ে করলেন এই যুবক!

ভালোবেসেই বছরখানেক আগে বাগদান করেছিলেন। কথা ছিল চলতি বছরের অক্টোবরে বিয়ে করবেন। দুই পরিবারও সেই বিয়ের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত ছিল। সব কিছু ঠিকই ছিল। এর মধ্যেই হঠাৎ বিচ্ছেদ হবু বর-কনের। হবু কনে স্পষ্ট জানিয়ে দেন, এই বিয়ে তিনি করবেন না।
সাধারণত এসব ক্ষেত্রে দুপক্ষই প্রচণ্ড হতাশ থাকে। কারণ, সব প্রস্তুতি ও আয়োজন শেষে হঠাৎ অনুষ্ঠান পণ্ড হলে ক্ষতির পাশাপাশি প্রেস্টিজ ইস্যুও থাকে। কিন্তু এক্ষেত্রে ঘট্না ঘটেছে উল্টো। কনে না আসলেও নির্ধারিত সূচি মেনেই বিয়ে সম্পন্ন হল। কিন্তু যেটা হল সেটা শুনতে অবাক লাগলেও সত্যি। কনে না আসায় নিজেই নিজেকে বিয়ে করলেন হবু বর। সোশ্যাল মিডিয়ায় বর্তমানে রীতিমতো ভাইরাল ওই ব্যক্তির বিয়ের ছবি এবং ভিডিও। যা দেখে নেটিজেনরাও অবাক। ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাজিলের বাহিয়া রাজ্যে।

আলোচিত ওই বরের নাম ডিয়াগো রাবেলো। গত বছর নভেম্বর মাসে বান্ধবী ভিটোর ব্রুয়েনোর সঙ্গে বাগদান পর্ব সেরেছিলেন। চলতি বছরের অক্টোবরে বিয়ের সকল পরিকল্পনাও করা ছিল। এর মধ্যেই তাদের সম্পর্কে নতুন মোড় আসে। জুলাই মাসে ঝগড়ার কারণে ভিটো বিয়ে বাতিল করে দেন। এরপরই কার্যত ভেঙে পড়েন ডিয়াগো।তবে একমাস আগে আচমকাই তিনি ঠিক করেন, বিয়ে বাতিল করবেন না। এরপরই ১৬ অক্টোবর বাহিয়ার ইটাকেয়ার রিসর্টে নির্ধারিত সূচি মেনে বিয়ে সারেন। নিজেই নিজের সঙ্গে বিয়ে সারেন তিনি। বিয়ের অনুষ্ঠানে ৫০ জন আমন্ত্রিতের মধ্যে ৪০ জনই উপস্থিত ছিলেন। তবে ভিটো এবং তার আত্মীয়রা ছিলেন না।

ডিয়াগো বলেন, এটি আমার জীবনের সবচেয়ে খুশির দিন। যাদের আমি জীবনে সবচেয়ে বেশি ভালবাসি তারা আমার সঙ্গে র‌য়েছেন। আমি এমন একটি জিনিস উদযাপন করছি যা কিনা পরবর্তীতে ট্র্যাজেডি হতে পারত, কিন্তু আমি সেটাকে কমেডি বানিয়েছি।
তিনি আরও বলেন, ‌‌আমি এর মাধ্যমে সবাইকে এটাই বোঝাতে চাই, আমি কিন্তু খুশি থাকার জন্য বিয়ের উপর নির্ভর করিনি। আমি অন্য কাউকে বিয়ে করতে চেয়েছিলাম, আমাদের সন্তানের স্বপ্ন দেখেছিলাম। কিন্তু সেটা হয়নি বলে কখনই নিজের খুশিটা নষ্ট করিনি। এই বিয়ের উপর আমার খুশি থাকা নির্ভর করেনি। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে বিয়ের অনুষ্ঠানের ছবি এবং ভিডিও পোস্ট করেন ডিয়াগো। নেটিজেনদের অনেকেই অবশ্য তাকে সমর্থন জানান। তার এই কাজের প্রশংসাও করেন।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *