ভালো নেই খালেদা জিয়া,আবেদন করবেন সরকার চাইলেই: খোকন

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো নয় বলে জানিয়েছেন তাঁর আইনজীবী ও দলটির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।তিনি বলেছেন, ‘সরকার চাইলে চেয়ারপারসনের পরিবারের আবেদনের প্রেক্ষিতে দেশে অথবা বিদেশে তিনি উন্নত চিকিৎসা নিতে পারবেন। সেক্ষেত্রে অন্তর্বর্তীকালীন মুক্তিতে বেঁধে দেয়া শর্তগুলো তুলে নিতে হবে, এমন নিশ্চয়তা পেলে বেগম জিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে আবেদন করা হবে।’শনিবার রাতে গুলশানে চেয়ারপারসনের বাসভবন ফিরোজায় তাঁর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান ব্যারিস্টার খোকন।

এদিন রাত ৮টায় ফিরোজায় প্রবেশ করেন খালেদা জিয়ার এ আইনজীবী।জানা গেছে, খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা, বিদেশে যেতে সরকারি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে আইনি পরামর্শ এবং এ সংক্রান্ত আবেদনের বিষয়ে চেয়ারপারসনের সঙ্গে ব্যারিস্টার খোকনের আলোচনা হয়েছে।গেল ২৭ মে বেগম জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছিলেন ব্যারিস্টার খোকন। এরপর দ্বিতীয় দফায় দেখা করেন ২৯ আগস্ট।এ বিষয়ে মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, ‘সরকার চাইলেই শর্ত তুলে নিতে পারে। কারণ, সাবেক প্রধানমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা ভালো নেই। করোনা পরিস্থিতির কারণে তার যে চিকিৎসা সেটা হচ্ছে না। সরকার যদি চায় চেয়ারপারসনের পরিবার আবেদন করলে শর্ত তুলে নেবে তাহলে উন্নত চিকিৎসার স্বার্থে আবেদন করতে সমস্যা নেই। সেটা সরকার বললেই পারে।

বেগম জিয়ার এ আইনজীবী আরও বলেন, ‘এ সংক্রান্ত আবেদন একটা করাই আছে। প্রয়োজন হলে সরকার সেটাকেও অনুসরণ করতে পারে। এ মুহূর্তে বেগম জিয়ার চিকিৎসা প্রয়োজন। আমরা এ বিষয়টিতেই বেশি জোর দিচ্ছি।’গত ২৫ মার্চ সরকারের নির্বাহী আদেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে সাময়িক মুক্তি পান খালেদা জিয়া। এরপর থেকেই তিনি গুলশানে বাসা ফিরোজায় আছেন।এরইমধ্যে গেল ৩ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় মেয়াদে খালেদা জিয়ার আরও ৬ মাস সাজা স্থগিত করে সরকার। তবে এক্ষেত্রে আগের দুই শর্ত (সাজা স্থগিতকালীন ঢাকায় নিজ বাসায় থাকতে হবে এবং বিদেশে গমন করতে পারবেন না) মেনে চলতে হবে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *