মাহফিলে সাঈদীর প্রশংসায় বক্তব্য দেন আজহারী

দেশের বিভিন্ন স্থানের মতো চাঁদপুরেও জনপ্রিয় ও আ’লোচিত ইস’লামী বক্তা মিজানুর রহমান আজহারীর মাহফিল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) মাহফিল কমিটিকে এ সংক্রান্ত একটি চিঠি দিয়ে মাহফিল বন্ধ রাখতে জে’লা প্রশাসন কার্যালয় থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। রেলওয়ে দারুল উলুম ইস’লামিয়া মাদরাসা ও মাহফিল এন্তেজামিয়া কমিটির সভাপতি মুহাম্ম’দ হোসেন গাজী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মাহফিল ঘিলে নিরাপত্তার অভাব এবং সব ধরনের ‌আ’পত্তিকর ঘটনা এড়াতে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে চাঁদপুর সদর মডেল থা’না থেকে জানানো হয়েছে।

এর আগে আগামীকাল রোববার চাঁদপুর রেলওয়ে দারুল উলুম ইস’লামিয়া মাদরাসায় আয়োজিত মাহফিলে মিজানুর রহমান আজহারী অংশগ্রহণ করবেন বলে মাহফিল কমিটি এক প্রেস বি’জ্ঞপ্তি দেয়। এটি স্থানীয় গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে ডিসেম্বরের শুরু থেকেই বিষয়টি নিয়ে চাঁদপুর সরগরম হয়ে ওঠে। এ নিয়ে মিজানুর রহমান আজহারীর ভক্তদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা দেয়। তবে চাঁদপুর রেলওয়ে দারুল উলুম ইস’লামিয়া মাদরাসার বার্ষিক মাহফিলে প্রধান বক্তা হিসেবে আজহারীর আশাকে কেন্দ্র করে একটি পক্ষ লিখিত অ’ভিযোগ দিয়ে প্রশাসনকে অবহিত করেন।

সরকার বিরোধী কার্যক্রম ও বিভিন্ন বিষয়ে বয়ান দেয়ার আশ’ঙ্কায় প্রতিপক্ষরা ওয়াজ বন্ধের জন্য লিখিত অ’ভিযোগটি প্রদান করে বলে জানা গেছে। তাই নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে প্রশাসন ওয়াজ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

চাঁদপুর মডেল থা’নার ভারপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (ওসি) নাছিম উদ্দিন বলেন, মিজানুর রহমান আজহারী চাঁদপুর রেলওয়ে মাদরাসায় ওয়াজ করার জন্য আসার খবর শুনে একটি পক্ষ অ’ভিযোগ করেছেন। তাই নিরাপত্তার স্বার্থে পু’লিশ সুপারের নির্দেশে ওয়াজ মাহফিল বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। মাহফিলে জে’লা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনুমতি না থাকায় পু’লিশ প্রশাসনও অনুমতি দেয়নি বলে জানান তিনি।

মাহফিল পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাবেক পৌর কমিশনার হোসেন গাজী স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানান, ‘আম’রা প্রথম দিকে প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে মাহফিল প্রচারণা শুরু করেছি। কিন্তু আইনশৃঙ্খলা অবনতির আশ’ঙ্কার কথা জানিয়ে ১৩ ডিসেম্বর পু’লিশের পক্ষ থেকে এবং ১৪ ডিসেম্বর জে’লা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চিঠি দিয়ে আমাদেরকে মাহফিলের অনুমতি নেই বলে জানানো হয়েছে।’

সম্প্রতি দেশের কয়েকজন ইস’লামী বক্তার মধ্যে মিজানুর রহমান আজহারী বেশ জনপ্রিয় হয়েছেন। তবে তাকে নিয়ে নানা বিতর্কও চলছে।

এর আগে বিশ্ব সুন্নী আ’ন্দোলন নামে একটি সংগঠনের দাবিতে ডিসেম্বরের শুরুতে ফেনীতে মিজানুর রহমান আজহারীর মাহফিল বন্ধ করে দেয় জে’লা প্রশাসন।

বিভিন্ন মাহফিলে মিজানুর রহমান আজহারীকে যু’দ্ধাপরাধে সাজা’প্রাপ্ত বাংলাদেশ জামায়াত ইস’লামী দলের নেতা দেলোয়ার হোসেন সাঈদীর প্রশংসায় বক্তব্য দিতে দেখা গেছে। এছাড়া ওয়াজে বিভিন্ন শব্দ ও ভাষার ব্যবহার নিয়েও তার সমালোচনা করা হচ্ছে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *