মেয়েকে ফিরে পেতে ধর্ম চর্চায় মন দেন শাবানা

নায়িকা শাবানা। ১৯৯৭ সালে প্রথম অ’ভিনয় ছেড়েছেন তিনি। কলা চলচ্চিত্র কলাকুশলী, ভক্তদের মনে চাপা কৌতূহল শাবানা চলচ্চিত্র জগত ছেড়েদিলেন কেন? ফ্লপ ছবি হচ্ছিল? দর্শক নিচ্ছিল না তাকে? জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়ছিল? কৌতূহল আর জিজ্ঞাসার কোন উত্তরই পায়নি কেউ।নাম, যশ, খ্যাতি, প্রতিপত্তি এক জীবনে যা কিছু অর্জন করেছেন তিনি ও তার পরিবার, তার সবটুকুই অভিনয় আর চলচ্চিত্রের কারণে। তবে হঠাৎ কেন তিনি নিজেকে এমন আড়াল কর ফেললেন চলচ্চিত্র থেকে।

তার পারিবারিকভাবে ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা যায়, তিনি কেবল অভিনয়ই ছাড়েননি, রীতিমত ‘তওবা’ করেছেন। শাবানা ১৯৯৭ সালে অভিনয় ছেড়েছেন। শোনা যায়, সেই সময় হঠাৎ তার আমেরিকা প্রবাসী মেয়েকে কিছুতেই খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। তখন তিনি মনে মনে মানত করেন, মেয়েকে যদি ফিরে পান, তাহলে জীবনে আর কখনও অভিনয় করবেন না, এই জগত ছেড়ে দিয়ে ধর্ম চর্চায় মন দিবেন। মেয়েকে ফিরে পেয়ে তিনি অভিনয়, চলচ্চিত্র এবং দেশ-তিনই ছাড়েন। স্থায়ীভাবে বসবাস শুরু করেন আমেরিকায়।

যে সন্তানদের জন্য শাবানা অভিনয়জীবন ছাড়লেন তারা এখন পরিণত বয়সের অধিকারী। পাট চুকিয়েছেন পড়াশোনার। বড় মেয়ে সুমী ইকবাল এমবিএ করেছেন। বিয়ে করে এখন সে পুরোদস্তুর গৃহিণী। ছোট মেয়ে ঊর্মি সাদিক হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করেছেন। ছেলে নাহিন সাদিক রটগার্স বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স করে চাকরি করছেন।২০ বছর অভিনয় থেকে দূরে আছেন শাবানা। কিন্তু তাতে কি। আজও রাস্তায় বের হলে দেখে ফেললেই সামনে আসেন। কেউবা ছুঁয়ে দেখেন। কেউ আবেগে জড়িয়ে ধরেন। এখন আবার কেউ কেউ নাকি সেলফি তোলার আবদারও করেন।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *