যে দোয়া পড়লে আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করা যায়।

মা তার সন্তানকে যত বেশি ভালোবাসেন। আল্লাহতালা তার বান্দাদেরকে ৯৯ ভাগ বেশি ভালোবাসেন। আর আল্লাহ ভালোবেসেই মানুষকে সৃষ্টির সেরা জীব হিসেবে সৃষ্টি করেছেন। আর আমাদের উপকারে দিয়েছেন অনেক নেয়ামত। এরপরেও আমরা আল্লাহর নৈকট্য লাভ করতে পারি না। আমরা আল্লাহর বিধান সঠিক ভাবে পালন করি না। তারপরেও আল্লাহ তাঁর বান্দাকে অনেক মায়া করেন। বান্দা আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য ইবাদত করলে আল্লাহ বান্দার প্রতি খুশি থাকেন।আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘অবশ্যই আমি মানুষকে সর্বোত্তম অবয়বে সৃষ্টি করেছি।’নবী কারীম (সা) তার উম্মতকে শিখিয়েছেন আল্লাহর সাহায্য লাভ, ভালোবাসা লাভ ও আল্লাহর নৈকট্য লাভের কার্যকরী প্রার্থনা।উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকা হুব্বাকা ওয়া হুব্বা মাইয়ুহিব্বুকা ওয়াল আমালুল্লাজি ইয়ুবাল্লিগুনি হুব্বাকা। আল্লাহুম্মাঝআল হুব্বাকা আহাব্বা ইলাইয়া মিন নাফসি ওয়া আহলি ওয়া মিনাল মায়িল বারদি।’অর্থ : হে আল্লাহ! আমি তোমার নিকট তোমার ভালবাসা কামনা করি; তোমাকে যে ভালবাসে তার ভালবাসা কামনা করি এবং যে আমল তোমার ভালবাসা পর্যন্ত পৌঁছায় সে আমল কামনা করি।হে আল্লাহ! তোমার ভালবাসাকে আমার কাছে আমার জীবন-সম্পদ, পরিবার-পরিজন এবং ঠাণ্ডা পানি হতেও অধিক প্রিয় করে দাও।’ (তিরমিজি, মসতাদরেকে হাকেম)আল্লাহ বান্দার কোন আমল কখন কবুল তা কেউ আল্লাহ ছাড়া কেউ বলতে পারে না। তাই আমরা সবাই আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশায় নবীজির শিখানো দোয়া বেশি বেশি পাঠ করি।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *