‘যৌ,নক,র্মীদের বাঁচার জন্য তো শুধুই সে,ক্স প্রয়োজন’

শুক্রবার সকাল ৯টায় ভিডিও বার্তায় ফের দেশবাসীর কাছে বার্তা রাখেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। এদিন প্রধানমন্ত্রীর বার্তার জন্য অনেকেই অপেক্ষা করেছিলেন। তারা ভেবেছিলেন খুব গুরুত্বপূর্ণ কিছু ঘোষণা করবেন তিনি বা দরিদ্র দিন আনা দিন খাওয়া শ্রমিকদের কথা বলবেন। কিন্তু তিনি জানালেন, আগামী ৫ এপ্রিল রাত ৯টায় সকলকে ৯ মিনিটের জন্য মোমবাতি, প্রদীপ বা মোবাইলের টর্চ জ্বালানোর আবেদন।এবার এই প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।স্বস্তিকা টুইট করেছেন, আমার বাড়িতে মোমবাতি নেই। আর আমি জানি আমার মতোই আরও অনেকের বাড়িতেই নেই। চলুন সবাই মিলে মোমবাতি কিনতে যাই। এর পরে আরও একটি টুইট করেন স্বস্তিকা।

 

 

সেখানে যৌ,নক,র্মীদের একটি ছবি ও একজনের টুইট শেয়ার করেছেন স্বস্তিকা। দেখা যাচ্ছে যৌ,নক,র্মীদের বাড়ি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। ১০০ ফুটের একটি বে,ঞ্চ। সেখানেই পালা করে তারা ঘুমোচ্ছেন তারা। লকডাউনে তাদের খাবার, পানি কিছুই জোটেনি।স্বস্তিকা রিটুইট করে লিখেছেন, দেশবাসীকে এক হয়ে করোনামুক্ত ভারত গড়ার ডাক দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু যাদের বেঁচে থাকাটাই কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে তারা কী করেই বা মোবাইলের আলো জ্বালবে? মোমবাতি জ্বালবে। ও! যৌ,নক,র্মীদের বেঁচে থাকার জন্য তো শুধু সে,ক্স,টাই তো প্রয়োজন।’প্রসঙ্গত, প্রধামন্ত্রীর এই আবেদনের পরেই নেটিজেনরা দুই ভাগে ভাগ হয়ে যান। একদল বলেন, তারা আরও অনেক গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা শুনবেন বলে আশা করেছিলেন। আর হাততালি-ঘণ্টার দিনের মতোই এদিনও রাস্তায় মানুষ ভিড় করবে বলে ধারণা তাদের।আবার অন্যদিকে মোদীভক্তরা বলছেন, প্রধানমন্ত্রী যখন বলেছেন তার পিছনে যথেষ্ট যুক্তি রয়েছে। তিনি গোটা দেশের একতা বোঝানোর জন্যই কথাটি বলেছেন।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *