রংপুরে হাঁসের বাচ্চার মাথায় শিং!

রংপুরে হাঁসের বাচ্চার মাথায় শিং! পীরগাছা উপজেলার কল্যাণী ইউনিয়নের বড়দরগাহ আনিসুর রহমানের বাড়িতে অদ্ভুত এই ঘটনাটি ঘটেছে। আর এ খবরটি চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে হাঁসের বাচ্চাটিকে একনজর দেখতে ওই বাড়িতে আশপাশের মানুষ ভিড় করতে থাকে ।সরেজমিনে দেখা যায়, প্রায় এক মাস ৮ দিন আগে বড়দরগা বাজার সংলগ্ন আনিসুর রহমানের বাড়িতে ১৪টি হাঁসের বাচ্চা ফুটানো হয়। হাঁসের বাচ্ছাগুলো ভালোভাবেই বেড়ে উঠছিল। কিন্তু গত বৃহস্পতিবার আনিসুর রহমান খেয়াল করেন একটি হাঁসের বাচ্চার মাথায় শক্ত কিছু একটা উঠছে। বাচ্চাটি নিয়ে তিনি চিন্তায় পড়ে যান। বাজারের নিয়ে গেলে উপস্থিত সবাই মাথার শক্ত অংশটিকে শিং বলে জানান। গত কয়েক দিনে শক্ত অংশটি অনেকটাই বেড়েছে। বর্ধিত অংশটি অন্যান্য প্রাণীর শিংয়ের সঙ্গে হুবহু মিল রয়েছে। বর্ধিত অংশটি শক্ত হওয়ায় হাত দিয়েও বাঁকানো সম্ভব হচ্ছে না। এটি অন্যান্য প্রাণীর মতো শিং বলে উপস্থিত অনেকে মত দেন।

আনিসুর রহমান জানান, ‘আমি ছোট বেলা থেকে হাঁস-মুরগি পালন করছি। কিন্তু এর আগে কখনো হাঁসের মাথায় শিং গজাতে দেখিনি। তবে হাঁসের বাচ্চাটি এখনো সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছে। প্রতিদিনই বিভিন্ন জায়গা থেকে শতশত মানুষ বাচ্চাটিকে এক নজর দেখতে ভিড় করছে।’পীরগাছা উপজেলা প্রাণিসম্পদ বিভাগের ভেটেরিনারি সার্জন ফরহাদ নোমান শিমুল বলেন, এটি জিনগত রোগ। শরীরে জিনগত সমস্যার কারণে এমনটি হয়ে থাকে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *