স্বামীর ঘরে শাকিব খানের নাম লিখলেন অপু বিশ্বাস, এরপর যা হলো

শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস এক যুগেরও বেশি সময় ধরে ঢালিউডের সবচেয়ে ব্যবসা সফল ও জনপ্রিয় জুটি। ব্যক্তিজীবনে ১০ বছর গোপনে সংসার করার পর ২০১৮ সালে একমাত্র ছেলে আব্রাম খান জয়কে কোলে নিয়ে গণমাধ্যমের সামনে আসেন অপু। ২০১৮ সালের ২২ ফেব্রুয়ারিতে ঢাকাই ছবির এ তারকা দম্পতির বিবাহবিচ্ছেদ হয়। দুজন আলাদা থাকলেও শোবিজ পাড়ায় সবসময়ই তারা আলোচনার কেন্দ্রে।এদিকে বছর শেষে নতুন পরিচয়ে আত্মপ্রকাশ করলেন অপু বিশ্বাস। অভিনেত্রী থেকে তিনি হয়ে গেলেন প্রযোজক। ইতোমধ্যে হাতে পেয়েছেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির সদস্যপদ। গেল ৩০ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে এ পদ পান এই ঢালিউড কুইন।

অপু তার নতুন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি ছেলেন নামে খুলেছেন। প্রতিষ্ঠানের নাম দিয়েছেন ‘অপু-জয় প্রোডাকশন হাউজ’।কিন্তু সদস্যপদের জন্য স্বামী হিসেবে শাকিব খানের নাম উল্লেখ করে বেশ বিপাকে পড়েন অপু। তথ্য বিভ্রান্তির কারণে স্থগিত হতে যাচ্ছিল তার আবেদন। কারণ, প্রযোজক সমিতির দাবি- অপু এখন আর শাকিব খানের স্ত্রী নন। তাদের বিচ্ছেদ হয়ে গেছে। স্বামী হিসেবে সাবেক স্বামীর নাম ব্যবহারকে ‘অবৈধ’ হিসেবে গণ্য করে সমিতি।বিষয়টি বুঝতে পেরে শাকিবের নাম কেটে সংশোধন এনে নিয়ম মেনে পুনরায় আবেদন করেন অপু বিশ্বাস। সেই আবেদন করে তাকে এ সদস্যপদ দেয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতি কর্তৃপক্ষ।

এ নিয়ে প্রযোজক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শামসুল আলম বলেন, ‘অপু স্বামীর জায়গায় শাকিব খানের নাম ব্যবহার করেছিলেন। সমিতির নিয়ম আছে, কোনও প্রযোজকের স্বামী/স্ত্রী অথবা সন্তান মাত্র ১১ হাজার টাকায় প্রযোজক-পরিবেশক হিসেবে সদস্যপদ পেতে পারেন। অপু বিশ্বাসও শাকিবের নাম ব্যবহার করে সেই সুযোগ নিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু আমরা তো সবাই জানি, অপু এখন শাকিবের স্ত্রী নন। তাদের ডিভোর্স হয়েছে। পরে অবশ্য সংশোধনী এনে সদস্যপদ পান অপু বিশ্বাস।’

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *