২০০০ কিলোমিটার দূরে হা’ম’লার ক্ষমতা আছে ই’রানের, নাগালেই ই’সরায়েল

মা’র্কিন বিমান হা’ম’লায় কাসেম সো’লাইমানি হ’ত্যা’র প্রতিশোধ নিতে আজ বুধবার সকালে ই’রাকে অবস্থিত মার্কিন দু’টি সামরিক ঘাঁটিতে হা’ম’লা চালিয়েছে ই’রান। এ ঘটনায় অন্তত ৮০ জন ‘নিহ’ত এবং আরো দুই শতাধিক সেনা আ’হ’ত হয়েছেন।

এরপর ই’রানের তরফ থেকে হু’মকি দিয়ে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি করতে চাইলে যুদ্ধ পুরো মধ্যপ্রাচ্যে ছড়িয়ে পড়বে এবং আ’ক্রমণ হবে ‘মার্কিন মূল ভূখণ্ডেও। সেই হু’মকির পর থেকেই রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাঁড়িয়েছে, ইরানের ক্ষে’পণা’স্ত্রের সক্ষমতার বিষয়টি। অর্থাৎ ইরান ঠিক কতদূর পর্যন্ত হা’ম’লা চালাতে পারে।

জানা গেছে, ইরানের শাহাব-১ ক্ষে’পণা’স্ত্র আ’ঘাত হা’নতে পারবে তিনশ কিলোমিটার দূরে। এছাড়া শাহাব-২ আ’ঘা’ত করতে পারে পাঁচশ কিলোমিটার পর্যন্ত। ক্বিয়াম-১ ক্ষে’পণা’স্ত্র আ’ঘাত করতে পারবে সাড়ে সাতশ কিলোমিটার দূরে এবং ফতেহ-১১০ এর পরিসীমা তিনশ থেকে পাঁচশ কিলোমিটার।

আরো জানা গেছে, জুলফিকার হা’ম’লা চালাতে পারবে সাতশ কিলোমিটারের মধ্যে। সবচেয়ে বেশি পরিসীমার ক্ষে’পণা’স্ত্র শাহাব-৩ আ’ঘা’ত করতে পারবে দুই হাজার কিলোমিটার দূর পর্যন্ত।

অথচ ই’রান থেকে ই’সরায়েলের দূরত্ব মাত্র এক হাজার সাতশ কিলোমিটার। মধ্যপ্রাচ্যে যু’ক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় মিত্র ই’সরায়েলের পুরো এলাকা শাহাব-৩ এর আওতায় রয়েছে সেই হিসেবে।

ই’রানের ক্ষে’পণাস্’ত্র আফগানিস্তান, কাতার, বাহরাইন, কুয়েত, ই’রাক, মিসর, তুরস্ক এবং ইউরোপের রোমানিয়া, বুলগেরিয়া ও গ্রিসের মতো দেশে। এ দেশগুলোর মধ্যে মিসর ছাড়া সব দেশেই যু’ক্তরাষ্ট্রের সামরিক ঘাঁটি বা উপস্থিতি রয়েছে।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *